রবিবার, ২৬শে মে ২০২৪, ১২ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১


আম খাওয়ার আগে পানিতে ভিজিয়ে রাখবেন কেন?


প্রকাশিত:
২২ এপ্রিল ২০২৪ ১১:২৭

আপডেট:
২৬ মে ২০২৪ ০৬:৩০

ছবি- সংগৃহীত

গরমের সময়ের সবচেয়ে ভালো দিক হলো এই মৌসুমের বিভিন্ন ফল। বিশেষ করে সুমিষ্ট ও রসালো ফল আমের জন্য আমরা অপেক্ষা করে থাকি সারা বছর। গরমের মৌসুমে আম পাওয়া যায় প্রচুর। আমাদের মধ্যে অনেকেই আম খাওয়ার আগে কিছুক্ষণ পানিতে ভিজিয়ে রাখেন। এই পদ্ধতি কি সঠিক? খাওয়ার আগে আম পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে কেন? চলুন জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত-

আমের পুষ্টিগুণ

আম হলো ভিটামিন এ এবং সি এর মতো প্রয়োজনীয় পুষ্টির একটি সমৃদ্ধ উৎস। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, দৃষ্টিক্ষমতা এবং ত্বক ভালো রাখতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। আম প্রচুর পরিমাণে খাদ্যতালিকাগত ফাইবারও সরবরাহ করে, যা হজমের উন্নতি করে। আম খেলে ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

আমে বিটা-ক্যারোটিন এবং ফ্ল্যাভোনয়েডের মতো অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যা ফ্রি র‌্যাডিক্যালের কারণে কোষকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে। এটি হৃদরোগ এবং ক্যান্সারের মতো দীর্ঘস্থায়ী রোগের ঝুঁকি কমাতে পারে। আম পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ভিটামিন কেও সরবরাহ করে, যা হার্টের স্বাস্থ্য, হাড়ের শক্তি এবং সামগ্রিক সুস্থতাকে বৃদ্ধি করে। তাই আমের মৌসুমে প্রতিদিন আম খেলে অনেক উপকারিতা পাওয়া যেতে পারে।

আম ভিজিয়ে রাখবেন যে কারণে

আম খাওয়ার আগে পানিতে ভিজিয়ে রাখা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো, এর কারণ হলো এতে থাকে ফাইটিক অ্যাসিড, যা শরীরে জিঙ্ক, আয়রন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মতো পুষ্টির শোষণের প্রাকৃতিক প্রক্রিয়াকে বাধা দেয়। আমের বাইরের স্তরে সক্রিয় যৌগের উপস্থিতি আমের উপকারী পুষ্টিতে বাধা দিতে পারে এবং এর ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য, মাথাব্যথা ইত্যাদির মতো স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে।

পানিতে আম ভিজিয়ে রাখলে তা এতে লেগে থাকা যেকোনো পৃষ্ঠের ময়লা বা কীটনাশকের অবশিষ্টাংশ দূর করতে পারে। এটি বিশেষভাবে উপযোগী হতে পারে যদি আম কেনার আগে ভালোভাবে ধোয়া না হয় বা স্টোরেজ বা পরিবহনের সময় দূষিত পদার্থের সংস্পর্শে আসে।

কিছু ক্ষেত্রে অল্প সময়ের জন্য আম পানিতে ভিজিয়ে রাখলে এর ত্বক কিছুটা নরম হয়, যে কারণে আমের খোসা ছাড়ানো বা কাটা সহজ হয়। তাই সহজে কাটা বা খোসা ছাড়ানোর প্রয়োজন হলে এভাবে ভিজিয়ে রাখতে পারেন। এতে আপনার কাজ সহজ হবে।

যদিও খাওয়ার আগে আম পানিতে ভিজিয়ে রাখা বেশিরভাগ পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় নয়, তবে এটি ফল পরিষ্কার এবং প্রস্তুত করার জন্য একটি সহায়ক পদক্ষেপ হতে পারে, বিশেষ করে যদি আপনার কীটনাশকের অবশিষ্টাংশ বা পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে উদ্বেগ থাকে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:




রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (১১ তলা) ৫১-৫১/এ, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২, ০১৯১২-১৬৩৮২২
ইমেইল : [email protected]; [email protected]
সম্পাদক : লিটন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Developed with by
Top