রবিবার, ১৬ই জুন ২০২৪, ১লা আষাঢ় ১৪৩১


মাভাবিপ্রবিতে ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি অভিযান পরিচালনা করছে "MBSTU CLEAN"


প্রকাশিত:
২৩ মে ২০২৪ ১৫:০৮

আপডেট:
১৬ জুন ২০২৪ ০৫:০০

ছবি সংগৃহিত

টাংগাইলের মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশবিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সৌন্দর্য রক্ষা ও শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি অভিযান পরিচালনা করেছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন "MBSTU CLEAN "এর সদস্যরা।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মে) পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি অভিযানের পঞ্চম ইভেন্টের কার্যক্রম শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়া ও আশেপাশের জায়গাগুলোতে থেকে । দুই ঘন্টা ব্যাপি ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কর্মসূচি চলে সকাল ৯ টা থেকে ১১ পর্যন্ত। আজকের এই কর্মসূচিতে বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়ে প্রায় ৩০ জন শিক্ষার্থী পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশগ্রহণ করেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, একদল শিক্ষার্থী মুখে মাস্ক, হাতে গ্লাভস ও বড় পলিথিন নিয়ে রাস্তায় পড়ে থাকা কাগজ, প্লাস্টিকের বোতল, চিপসের প্যাকেট, পলিথিন, গাছের পাতা কুড়াচ্ছেন। আরেকদল শিক্ষার্থী ঝাড়ু দিয়ে কুড়ানো ময়লা-আবর্জনা একত্র করে পুড়িয়ে ফেলছেন ও আবার কিছু ময়লা ডাস্টবিনে ফেলে দিচ্ছেন।

এর আগেও ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কর্মসূচির অভিযানে ১ এপ্রিল প্রথম ইভেন্টে বিজয়াঙ্গন, ২৫ শে এপ্রিল দ্বিতীয় ইভেন্টে মেডিকেল সেন্টারের সামনে , মুক্তমঞ্চের সামনে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সেকেন্ড গেটের আশেপাশে, ২ মে তৃতীয় ইভেন্টে মাল্টিপারপাস ভবনের আশেপাশে, শহীদ মিনার, হাতির কবর, ১৫ই মে চতুর্থ ইভেন্টে একাডেমিক ভবন- ২ এবং একাডেমিক ভবন -৩ এর আশেপাশের জায়গা জুড়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থী আলমগীর বলেন -পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ। আমরা চাই আমাদের ছোট ক্যাম্পাসটাকে ফুলের মতো সাজিয়ে গুছিয়ে রাখতে ; আর এই চিন্তাধারাকে সামনে রেখেই আমরা সবাই ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি।
আমি মনে করি, আমরা যদি পরিচছন্নতা বিষয়ে সকলে সচেতন হই , তাহলে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একটি সুন্দর ও সাবলীল পরিবেশ উপহার দিতে সক্ষম হবো। ক্যাম্পাস যেহেতু আমাদের, তাই ক্যাম্পাসের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার দায়িত্ব আমাদেরই, এই লক্ষ্য কে সামনে রেখে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাসের স্বপ্নকে বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তিনি আরও বলেন, প্রথমে নিজেকে পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে, তাহলেই তো পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক সচেতনতার বার্তা সকলের মাঝে পৌছে দিতে পারবো।

সিপিএস বিভাগের শিক্ষার্থী শাহজালাল হোসেন রিয়াদ বলেন -আমাদের সকলের উচিত ক্যাম্পাস সবসময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা। কিন্তু সবার আগে আমাদের যেটি প্রয়োজন তা হল নিজেকে সচেতন রাখা এবং নিজ নিজ ডিপার্টমেন্ট পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা। ক্যাম্পাস আমাদের ; তাই ক্যাম্পাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে সুষ্ঠ সুন্দর রাখার দায়িত্বও আমাদের। আমি সকলকে বলবো চলার পথে যদি আমরা কাগজ, পলিথিন, প্লাস্টিকের বোতল দেখি, তাহলে আমরা যেন নিজ দায়িত্বে ময়লা গুলো নির্দিষ্ট স্থান বা ডাস্টবিনে ফেলি। আমরা যদি নিজে সচেতন থেকে এসব কাজ গুলো করতে পারি তাহলে আমাদের ক্যাম্পাস সবসময় পরিচ্ছন্ন থাকবে।

উল্লেখ্য, পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত ক্যাম্পাস গড়ার লক্ষ্যে অবিরাম কর্মরত সচেতন ছাত্র-ছাত্রীদের প্ল্যাটফর্মের নাম" MBSTU CLEAN "। "আমাদের ক্যাম্পাস আমরা রাখব পরিষ্কার, হাতে হাত রেখে এই হোক আমাদের অঙ্গীকার "এই স্লোগানকে সামনে রেখে ১৭ই অক্টোবর ২০১৯ সালে MBSTU CLEAN সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

এ সংগঠনের মূল লক্ষ্য হলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ক্যাম্পাস উপহার দেওয়া। এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর করোনা প্যান্ডেমিক এর কারণে এর কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়, পরে আবার নতুন উদ্যমে এর কার্যক্রম সচল হয়। ক্যাম্পাস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার জন্য যাবতীয় যেসব যন্ত্রপাতিগুলো প্রয়োজন হয় প্রথমে তারা নিজেরাই চাঁদা তুলে এর কার্যক্রম পরিচালনা করেন, পরবর্তীতে শিক্ষকবৃন্দরা ক্যাম্পাস পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য বিভিন্নভাবে তাদের সহযোগীতা করে যাচ্ছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:




রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (১১ তলা) ৫১-৫১/এ, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২, ০১৯১২-১৬৩৮২২
ইমেইল : [email protected]; [email protected]
সম্পাদক : লিটন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Developed with by
Top