শুক্রবার, ১৯শে জুলাই ২০২৪, ৪ঠা শ্রাবণ ১৪৩১

https://rupalibank.com.bd/


ঘূর্ণিঝড় রেমালে ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর


প্রকাশিত:
১৩ জুন ২০২৪ ১৬:৫১

আপডেট:
১৯ জুলাই ২০২৪ ০৯:৪০

ছবি- সংগৃহীত

ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে তিন লাখ ৮৩ হাজার ৮১৫ জন মানষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত সাত হাজার ৪৮১ কোটি ৮৩ লাখ ৯ হাজার ২৫২ টাকার আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। রেমালের তাণ্ডবে মন্ত্রণালয়ভিত্তিক ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে এটি হস্তান্তর করেন দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মহিববুর রহমান।

ক্ষয়ক্ষতির হিসাব অনুযায়ী, রেমালের প্রভাবে দমকা হাওয়া ও বৃষ্টিতে ৮২ হাজার ৭৮৩ দশমিক ৮২ হেক্টর ফসলি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আক্রান্ত কৃষকের সংখ্যা পাঁচ লাখ ৩৭ হাজার ২৩৪ জন।

মন্ত্রণালয়ের বিবরণীতে বলা হয়, এই ঘূর্ণিঝড়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের ৬১৩টি স্কুল, ৫৬টি কলেজসহ মোট ৬৬৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ৩১ কোটি ৭৬ লাখ ৪৮ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন বরিশাল ও খুলনা বিভাগের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, পিটিআই, বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় এবং উপজেলা শিক্ষা অফিসসহ মোট ৭৭ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

বরিশাল বিভাগের ৮৮০টি, চট্টগ্রাম বিভাগের ৯৮টি ও খুলনা বিভাগের ৩৮৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ভিত্তিক এই ক্ষয়ক্ষতির বিবরণীতে উপজেলা ত্রাণ গুদাম কাম দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তথ্য কেন্দ্রসহ ১০টি সুপারিশ করা হয়েছে।

এছাড়া সুপারিশের মধ্যে রয়েছে, গ্রামীণ রাস্তায় ১৫ মিটার সেতু/কালভার্টের দৈর্ঘ্য বাড়িয়ে ৩০ মিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যেতে পারে; পরিবেশ সুরক্ষায় প্রচলিত ইট ব্যবহার না করে ইউনি ব্লক ভিত্তিক রাস্তা নির্মাণ এবং রাস্তার বর্তমান সংখ্যা বাড়িয়ে পরবর্তী বছরে ৫ হাজারে উন্নিতকরণ; চলমান প্রকল্পের বাইরে আরও ১ হাজার সাইক্লোন শেল্টার ও ৫০০ বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ; বাংলাদেশের সব মুজিবকেল্লাকে পাকা অবকাঠামোয় রূপান্তর; খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও কৃষকদের সুরক্ষায় সারা দেশে ‘শেখ হাসিনা কৃষক শেড’ নির্মাণ; হিউম্যানিটারিয়ান স্টেজিং এরিয়া দ্রুত নির্মাণ; বজ্রপাত মোকাবিলায় পরিকল্পনা কমিশনে বিবেচনাধীন ডিপিপি অনুমোদন ও ভূমিকম্প মোকাবিলায় পর্যাপ্ত মালামাল ক্রয়ের অনুমোদন প্রদান; ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে সমন্বিত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাঠামো গড়ে তুলতে ফায়ার সার্ভিস ও আবহাওয়া অধিদপ্তরকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে অঙ্গীভূতকরণ।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:




রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (১১ তলা) ৫১-৫১/এ, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২, ০১৯১২-১৬৩৮২২
ইমেইল : [email protected]; [email protected]
সম্পাদক : লিটন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Developed with by
Top