শনিবার, ১৩ই এপ্রিল ২০২৪, ২৯শে চৈত্র ১৪৩০

Rupali Bank


গরমের সঙ্গে বাড়ছে ডাবের দাম


প্রকাশিত:
১৯ মে ২০২১ ২৩:৪১

আপডেট:
১৩ এপ্রিল ২০২৪ ০৫:২৮

ছবি: সংগৃহীত

পটুয়াখালীর গলাচিপায় তাপপ্রবাহ বাড়তে থাকায় ডাবের দাম এখন আকাশচুম্বী। রোজার পরে আবারও শুরু হয়েছে প্রচণ্ড তাপপ্রবাহ, ছড়িয়ে পড়েছে ডায়রিয়া, দেখা দিয়েছে স্যালাইন সংকট। সারাদিন গরমে অতিষ্ঠ হয়ে মানুষ চাইছেন একটু তৃষ্ণা মেটাতে।

এর জন্য মানুষের প্রথম পছন্দ ডাব। কিন্তু ডাবের দাম অনেক বেশি থাকায় সাধারণ মানুষ এখন ডাব কিনতে সাহস পাচ্ছে না। গরম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে ডাবের দাম।

এদিকে বৈরী আবহাওয়া, নারিকেল গাছে লাল মাকড়শা, সাদা মাছির সবুজ পাতা থেকে রস নিংড়ে খাওয়া এবং গাছের পাতায় ও কাণ্ডে কালো ছাই পড়ায় নারকেল গছে আগের মতো ডাবের ফলন হচ্ছে না বলে জানান উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এআরএম সাইফুল্লাহ। অজ্ঞাত কারণে গাছগুলো কেমন যেন নিস্তেজ হয়ে পড়ছে।

সরেজমিন গিয়ে ডাব বিক্রেতা পৌর শহরের মো. রিয়াল, সোহরাব মিয়া, সুবাস বিশ্বাস, জহিরুল ইসলাম ও নারিকেল বাগানি এবং স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রচণ্ড তাপদাহে ডাবের চাহিদা বেড়ে গেছে। আগের মতো কম দামে ডাব কিনতে না পারায় বাধ্য হয়ে বেশি দামে ডাব বিক্রি করছেন। তাছাড়া ডাবের ফলনও কমতে শুরু করেছে। গাছ থেকে ডাব পাড়া, পরিবহনসহ দাম অনেক বেশি পড়ে যাচ্ছে।

বুধবার পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আকার ভেদে প্রতি পিস ডাব ৫০ টাকা থেকে ৭০ টাকা দামে বিক্রি করা হচ্ছে। কোনো কোনো বিক্রেতা ডাব একটু বড় হলেই তার দাম হাঁকছেন ৮০-১০০ টাকা; যা স্মরণকালের সর্বোচ্চ হওয়ায় স্বাভাবিকের তুলনায় দাম চড়া হওয়ায় অনেকেই ফিরে যাচ্ছেন না কিনে।

ডাবচাষী মনির হোসেন বলেন, আবহাওয়া অনুকূলে না থাকায় এবার নারকেল গাছে ফলন খুবই কম হয়েছে। ডাব কম হওয়ায় চাহিদাও বৃদ্ধি পেয়েছে এবং এবার ডাব বিক্রেতা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ডাব সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছেন, ডাবের দামও ভালো পেয়েছি। যে কারণে ডাবের দাম অনেক বেশি।


সম্পর্কিত বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:




রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (১১ তলা) ৫১-৫১/এ, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০।
মোবাইল: ০১৭১১-৯৫০৫৬২, ০১৯১২-১৬৩৮২২
ইমেইল : [email protected]; [email protected]
সম্পাদক : লিটন চৌধুরী

রংধনু মিডিয়া লিমিটেড এর একটি প্রতিষ্ঠান।

Developed with by
Top